• ঢাকা

  •  রোববার, জানুয়ারি ২৯, ২০২৩

অর্থ ও কৃষি

তাড়াশে সার ডিজেলের সংকট না থাকায় সাচ্ছন্দে বোরো আবাদ শুরু

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:

 প্রকাশিত: ১৫:০১, ১৭ জানুয়ারি ২০২৩

তাড়াশে সার ডিজেলের সংকট না থাকায় সাচ্ছন্দে বোরো আবাদ শুরু

ছবি: সময়বিডি.কম

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের তাড়াশে করোনা পরবর্তী অধিক খাদ্য উৎপাদনের লক্ষ্যে ব্যাপাকভাবে বোরো আবাদ শুরু হয়েছে। এ দিকে রাসানিয়ক সার ও ডিজেলের সংকট না থাকায় কৃষকরা সাচ্ছন্দে বোরো আবাদে ব্যস্ত সময় পার করেছেন।

তাড়াশ কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, খাদ্যশস্যের ভান্ডারখ্যাত তাড়াশে চলতি বছর প্রায় ২২ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে ব্রি-৯০, কাটারিভোগ, ব্রি-৪৯, ব্রি-৫১, স্থানিয় জাত আব্দুল গুটিসহ বিভিন্ন জাতের বোরো ধানের আবাদের লক্ষ্যমাত্র নিধারণ করা হয়েছে। বর্তমানে পৌষের শেষে উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভার এলাকার ফসলি জমিতে সেচ দিয়ে জমি চাষের পাশাপাশি কৃষক বোরো ধান লাগানো শুরু করেছেন।

আবার সরিষা আছে এমন জমিতে বোরো ধান লাগানোর জন্য শত শত কৃষক চারা বীজ প্রস্তুত রেখেছেন। যেন সরিষা তোলার পরেই দ্রুত বোরো ধান আবাদ করতে পারেন।

বারুহাস ইউনিয়নের কাজিপুর গ্রামের কৃষক শাহ আলম বলেন, তাড়াশ উপজেলায় রেকর্ড পরিমাণ খাদ্যশস্য ও  ধান উৎপাদিত হয়। আর সে লক্ষ্যেই পুরো উপজেলায় পুরোদমে বোরো আবাদ শুরু করেছেন কৃষক।

তাড়াশ কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে আরো জানা গেছে, বোরো মৌসুমে প্রায় ২২ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে ধানের আবাদ করতে কৃষকদের প্রয়োজন পড়বে ৫ হাজার মেট্রিকটন ইউরিয়া, ১৬ মেট্রিকটন টিএসপি, ২০ মেট্রিকটন ডিএপি, ৬৪ মেট্রিকটন এমওপি সার। যার পুরোটাই পর্যায়ক্রমে উপজেলার ১২ জন সার ডিলারের মাধ্যমে কৃষকদের মাঝে বিক্রি নিশ্চিত করা হয়েছে।

এ দিকে সরকারিভাবে পর্যাপ্ত ইউরিয়া, টিএসপি, ডিএপি, এমওপি সার ও ডিজেল সরবাহ থাকায় উপজেলার হাজার হাজার কৃষক সাচ্ছন্দে বোরো আবাদ করতে পারবেন এমনটি জানিয়েছেন দেশিগ্রাম ইউনিয়নের বলদিপাড়া গ্রামের কৃষক নাসিম উদ্দিন।

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন সময়বিডি.কম-কে বলেন, তাড়াশ উপজেলা ধান উৎপাদনে জেলার মধ্যে শীর্ষে রয়েছে। আর করোনা পরবর্তী অধিক খাদ্য উৎপাদনের লক্ষ্যে তাড়াশ উপজেলার কৃষকদের প্রয়োজন মতো রাসানিক সার ও ডিজেল সরবারাহ নিশ্চিত করা হয়েছে। এ উপজেলায় সারানিক সার ও ডিজেলের কোন সংকট না থাকায় কৃষক সাচ্ছন্দে বোরো আবাদে মনোনিবেশ করেছেন।

জানুয়ারি ১৭, ২০২৩

মৃণাল সরকার মিলু/এবি/

মন্তব্য করুন: