• ঢাকা

  •  বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৫, ২০২৪

জীবন-যাপন

দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার খেলে কোলেস্টেরল বাড়ে না

নিউজ ডেস্ক:

 প্রকাশিত: ১১:৪৪, ১৮ জুলাই ২০২৩

দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার খেলে কোলেস্টেরল বাড়ে না

প্রতীকী ছবি

কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখতে অনেকেই রোজের খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দেন দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার। কিন্তু পুষ্টিবিদরা বলছেন, দুধ খেলে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার ধারণা একেবারেই ভ্রান্ত। কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধিতে দুধের কোনো ভূমিকা নেই।

শরীরে খারাপ ও ভালো দুই ধরণের কোলেস্টেরল থাকে। খারাপ কোলেস্টরলকে বলা হয় ‘লো ডেনসিটি লাইপোপ্রোটিন’ (এলডিএল) এবং ভালো কোলেস্টেরলকে বলা হয় ‘হাই ডেনসিটি লাইপোপ্রোটিন’ (এইচডিএল)। এটি খারাপ কোলেস্টেরলকে শোষণ করে এবং শরীর সুস্থ রাখে। হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। তাই শরীরে এইচডিএল-এর সঠিক মাত্রা বজায় রাখা জরুরি।

‘ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব ওবেসিটি’ শীর্ষক গবেষণাপত্রে প্রকাশিত যে দুধ পান করলে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ে না। গবেষণাপত্রে বলা হয়েছ, যে দুধ শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে।

সমীক্ষা বলছে, যাঁরা নিয়মিত দুধ পান করেন, তাঁদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রায় ১৪ শতাংশ হ্রাস পায়।

অনেকেই আছেন, যাঁরা ওজন বেড়ে যাওয়ার ভয় দুধ এড়িয়ে চলেন। তবে গবেষণা বলছে, পরিমিত মাত্রায় দুধ খেলে ওজন বাড়ে না। তেমনই দুধ দিয়ে তৈরি ঘি খেলেও আপনার শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়বে না। তবে অবশ্য দিনে এক থেকে দু’চামচের বেশি ঘি না খাওয়াই ভালো। স্বাস্থ্যকর ফ্যাট শরীরের জন্য ভালো। দুধে থাকা স্বাস্থ্যকর ফ্যাট শরীরের ক্ষতি করে না।

দুধের মতো পুষ্টিগুণ অনেক কম খাবারেই আছে। খুদে থেকে বয়স্ক, সব বয়সের জন্যই দুধ খাওয়া ভীষণ জরুরি। ক্যালশিয়ামে সমৃদ্ধ দুধ হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে। বার্ধ্যক্যে অস্টিয়োপরোসিসের ঝুঁকি কমায়। এ ছাড়াও, দুধে আছে ভরপুর পরিমাণে ফসফরাস, ভিটামিন এ, ভিটামিন বি ১২, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, জিঙ্ক এবং আয়োডিন। এই উপাদানগুলো শরীরের সামগ্রিক সুস্থতার জন্য অত্যন্ত জরুরি।

এসবিডি/এবি/

মন্তব্য করুন: