• ঢাকা

  •  রোববার, জানুয়ারি ২৯, ২০২৩

বাংলাদেশ

রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘটের তৃতীয় দিনে মহাসড়ক ফাঁকা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:

 প্রকাশিত: ২০:১৭, ৩ ডিসেম্বর ২০২২

রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘটের তৃতীয় দিনে মহাসড়ক ফাঁকা

ছবি: সময়বিডি.কম

সিরাজগঞ্জ: তৃতীয় দিনের মতো রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় ১০ দফা দাবিতে  অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট চলছে। পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকে পরিবহন ধর্মঘট সিরাজগঞ্জে থেকে রাজশাহী রুটের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়াও উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার মহাসড়কেও চলাচল করছে না উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গের যানবাহন। 

শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়কের কড্ডার মোড়ে গিয়ে দেখা যায়, জনবহুন এই মহাসড়কে দূরপাল্লার কোনো বাস চলাচল করছে না। এই মহাসড়ক দিয়ে উত্তরবঙ্গের ২২ জেলার যানবাহন চলাচল করে। রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলা ধর্মঘটের আওয়তায় থাকলেও বাকি জেলাগুলো বাস চলাচলও প্রায় বন্ধ হয়ে পড়েছে। মহাসড়কে ট্রাক ও নিজস্ব পরিবহন মাইক্রোবাস ও প্রাইভেটকারের সংখ্যা বেশি দেখা যাচ্ছে।

এদিক ধর্মঘটে সিরাজগঞ্জ থেকে রাজশাহী রুটের সকল বাস বন্ধ রয়েছে। জেলার অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। জেলার অভ্যন্তরীণ চলাচলের জন্য যাত্রীদের এখন একমাত্র ভরসা সিএনজিচালিত অটোরিকশা।  যে করনেই গতকাল থেকে ভাড়া বেড়েছে অটোরিকশার।

যাত্রীরা বলছেন, শুক্রবার অফিস বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে কিছুটা কম ছিলো। কিন্তু আজ সকাল থেকে কর্মস্থলে যেতে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। মহাসড়কের কড্ডার মোড়ে ঢাকাগামী যাত্রী নাজমূল হাসান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জে এসেছি। আজ সকালে ঢাকা যাবার জন্য কড্ডার মোড়ে আসলে কোন গাড়ি পাচ্ছি না। 

আরেক যাত্রী আলীম মন্ডল জানান, রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলায় ধর্মঘট চলছে কিন্তু এখন দেখছি এই বিভাগের উপর দিয়ে কোন গাড়িই চলছে না। যাত্রীদের এমন ভোগান্তির কারনে অনেকেই রেলপথে যেতে গেলেও তারা ট্রেনের টিকিট পাচ্ছে না। ধর্মঘটের কারনে চাপ পড়েছে ট্রেনগুলোতে। 

এদিকে ধর্মঘটের বিষয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সুলতার মাহামুদ জানান, ১০ দফা দাবিতে আমাদের পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী ধর্মঘট পালন করা হচ্ছে। আমাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তিন দিনের ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। তবে দাবী মানা না হলে এ আন্দোলন চলমান থাকবে। 

তিনি জানান, আজ ধর্মঘটের বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত আসতে পারে। 

ডিসেম্বর ৩, ২০২২

মৃণাল সরকার মিলু/এবি/

মন্তব্য করুন: