• ঢাকা

  •  সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

অর্থ ও কৃষি

পেঁয়াজের জন্য বিদেশের উপর নির্ভরশীল থাকতে হবে না: কৃষিমন্ত্রী

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৭:২৬, ১৫ নভেম্বর ২০২২

পেঁয়াজের জন্য বিদেশের উপর নির্ভরশীল থাকতে হবে না: কৃষিমন্ত্রী

ছবি: সময়বিডি.কম

চুয়াডাঙ্গা: পেঁয়াজের জন্য আমাদের বিদেশের উপর আর নির্ভরশীল থাকতে হবে না। পেঁয়াজ বিদেশে রপ্তানি করা যাবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ  আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি বলেন, আমরা চেষ্টা করছি গ্রীষ্মকালীন একটা পেঁয়াজ। বিজ্ঞানীরা উদ্ভাবন করেছে এই জাত গ্রীষ্মকালে হয়। এবং গ্রীষ্মকালের এই পেঁয়াজ আশ্বিন-কার্তিক মাসে তোলা যায়। আমি বিশ্বাস করি পেঁয়াজের জন্য আমাদের বিদেশের উপর আর নির্ভরশীল থাকতে হবে না। আমরা বরং পেঁয়াজ এবং অন্যান্য ফসল বিদেশে রপ্তানি করতে পারবো।

মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার সন্তোষপুর গ্রামে গ্রীষ্মকালীন পেঁয়াজের ক্ষেত পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, পেয়াঁজ আমাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটা মসলা। খাবারের সাথে সবচেয়ে এটা বেশি ব্যবহার হয়। এদেশে পেঁয়াজের কোনোদিন ঘাটতি ছিল না। কিন্তু জনসংখ্যা বাড়ছে এ কারণে ধান বেশি উৎপাদন করতে হয়। মানুষ পেঁয়াজসহ অন্যান্য ফসল উৎপাদন করতে চায় না। আমাদের দেশে ফাল্গুন-চৈত্র মাসে যে পেঁয়াজগুলো তোলা হয় সেগুলো পচনশীল হওয়ায় বেশি দিন রাখা যায়না। ফলে আশ্বিন-কার্তিক মাসে পেঁয়াজ পাওয়া যায় না, বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়।

এ সময় কৃষকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে নির্দেশনা দিয়েছেন কোনো ক্রমেই যেনো সারের কোনো সমস্যা না হয়। এ ব্যাপারে কৃষি মন্ত্রণালয় খুবই সচেতন আছে। আশাকরি বড় ধরণের কোনো বিপর্য না হলে সারের কোনো সংকট হবে না। এ ব্যাপারে আমরা সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি।

পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোঃ আলী আজগার টগর, কৃষি সচিব মোঃ সায়েদুল হক, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মোঃ আমিনুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মনজু, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোঃ হাফিজুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বিভাস চন্দ্র সাহা, জীবননগর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন আক্তার প্রমুখ। 

নভেম্বর ১৫, ২০২২

সালাউদ্দীন কাজল/ এবি/

মন্তব্য করুন: