• ঢাকা

  •  শুক্রবার, মে ২৪, ২০২৪

অপরাধ

পুলিশের তদন্তে পানিতে ডুবে মৃত্যু, পিবিআইয়ের তদন্তে হত্যা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ২০:৩৯, ১৭ আগস্ট ২০২৩

পুলিশের তদন্তে পানিতে ডুবে মৃত্যু, পিবিআইয়ের তদন্তে হত্যা

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলায় ২০২২ সালে মনির হোসেন মনি (১৯) মৃত্যুর ঘটনার আসল রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। মৃত্যুর ৯ মাস পর তদন্তে বেড়িয়ে এসেছে এটি স্বাভাবিক মৃত্যু নয়; পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

জানা যায়, মনির বাবা হারুণ আর রশিদের দায়ের করা মামলায় পুলিশ তদন্ত শেষে এটাকে আত্মহত্যা বলে দাবি করেছিল। এ তদন্ত প্রতিবেদনে বাদী নারাজি দিলে মামলাটি পিবিআইয়ে হস্তান্তর করা হয়। পরে গত ১৩ আগস্ট দুই আসামী গ্রেপ্তার করার পর হত্যায় দায় স্বীকার করেন তারা।

বৃহস্পতিবার (‌১৭ আগস্ট) সকাল ১১টায় সংবাদ সম্মেলন এ তথ্য জানান পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার রেজাউল করিম। 

তিনি জানান, গত বছর ১০ নভেম্বর দুপুরে মনির হোসেন তার নিজ বাড়ি শাহজাদপুর উপজেলায় রুপপুর গ্রাম থেকে বের হয়। এর পর থেকে তার কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে ১২ নভেম্বর করতোয়া নদীতে তার লাশ পাওয়া যায়। পরে মনির বাবা থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় পুলিশ তদন্ত রিপোর্ট পর্যালোচনা করে এটিকে স্বাভাবিক মৃত্যু বলে তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করে। এই রিপোর্টের পক্ষে বাদী নারাজি দিলে মামলাটি আমাদের হাতে আসে। আমরা এটি নিয়ে কাজ করেতে গিয়ে দেখি পানিতে ডুবে মৃত্যু হলেও মৃতের শরীরে বেশ কিছু আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে তথ্য সংগ্রহ করে আমারা গত ১৩ আগস্ট শাহজাদপুর উপজেলায় রুপপুর গ্রামের মৃত হাফিজের ছেলে আব্দুল কাদের ও একই এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে মাহাবুব হাসান রিমনকে আটক করি। পরে তারা হত্যার দায় স্বীকার করে বলে, তারা দুইজন-সহ আরো দুইজন ঘটনার দিন এক সাথে মাদক সেবন করার পর কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মনিরের মুখে, বুকে ও মাথায় কিল ঘুষি মারে। এক পর্যায়ে মনির নিস্তেজ হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে ঘটনা অন্যদিকে নেওয়ার জন্য মাঝ নদিতে ফেলে দেয়।

পুলিশ সুপার আরো বলেন, ১৬ আগস্ট আদালতে তাদের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি নেওয়া হয়েছে। বাকি আসামীদের ব্যাপারে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। 

আগস্ট ১৭, ২০২৩

মৃণাল সরকার মিলু/এবি/

মন্তব্য করুন: