• ঢাকা

  •  মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

খেলার মাঠে

কাতার বিশ্বকাপ: স্বামী-স্ত্রী ছাড়া যৌনমিলন করলে ৭ বছর কারাদণ্ড

নিউজ ডেস্ক:

 আপডেট: ০৯:১৪, ২১ জুন ২০২২

কাতার বিশ্বকাপ: স্বামী-স্ত্রী ছাড়া যৌনমিলন করলে ৭ বছর কারাদণ্ড

বিশ্বকাপ ফুটবল মানেই দেখা যায় ম্যাচ শেষে রাতভর পার্টি। কিন্তু কাতারে তা নিষিদ্ধ। সমর্থকদের সাবধান করে দেয়া হয়েছে, এই ধরনের কোনো আশা যেন না রাখা হয় এবারের বিশ্বকাপে। এক রাতের ‘অবৈধ’ যৌনমিলনের (ওয়ান নাইট স্ট্যান্ড) জন্য হতে পারে সাত বছরের জেল।

পুলিশ জানায়, স্বামী-স্ত্রী জুটি না হলে বিশ্বকাপ দেখতে এসে যৌনমিলন করা যাবে না। এই প্রতিযোগিতায় ‘এক রাতের যৌনমিলন’ থাকবে না। কোনো পার্টি করা যাবে না। নিয়ম না মানলে সাত বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। 

বিশ্বকাপে প্রথমবার এমনভাবে যৌনমিলন নিষিদ্ধ করা হচ্ছে। সমর্থকদের সতর্ক থাকতে হবে। কাতারে স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক বাদ দিয়ে যৌনমিলন এবং সমকামী সম্পর্ক নিষিদ্ধ।

ফিফা জানিয়েছে, সকলকে এই প্রতিযোগিতায় আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে বেশ কিছু নির্দিষ্ট পদবীর মানুষকে কাতার যাওয়ার অনুমতি দেয়া হচ্ছে না। 

কাতার বিশ্বকাপে ফিফার মুখ্য নির্বাহী নাসের আল খাতের বলেন, প্রত্যেক সমর্থকের নিরাপত্তা আমাদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু সর্বসমক্ষে ব্যক্তিগত ভালবাসা দেখানো আমাদের দেশের সংস্কৃতি নয়। সেটা সকলের জন্যই প্রযোজ্য।

কাতার সুপ্রিম কমিটির পক্ষ থেকেও সকলকে সতর্ক করা হয়েছে। 

কাতার ফুটবল সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বলেন, কাতার খুব রক্ষণশীল দেশ। এখানে অনেক কিছুই সম্ভব নয়। সমকামিতা শুধু সেখানে প্রকাশ করা উচিত যে দেশে এটা মানা হয়।

তাহলে, “প্রথমবারের মতো এবারের বিশ্বকাপে মূলত যৌন নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ভক্তদের এর জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।”

কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠেছে আগে থেকেই। বিশেষ করে যেসব শ্রমিকরা স্টেডিয়াম তৈরি করেছিল, তাদের যথাযথ মুজুরী দেয়া থেকে শুরু করে শরীরের খেয়াল রাখা হয়নি। একাধিক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে স্টেডিয়াম বানাতে গিয়ে। এই নিয়ে অনেক প্রাক্তন ফুটবলার নিজেদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

জুন ২১, ২০২২

এসবিডি/এবি/

মন্তব্য করুন: