• ঢাকা

  •  মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

জেলার খবর

২০ হাজার সুবিধাভোগীর সঙ্গে এমপি টগরের মতবিনিময়

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি:

 প্রকাশিত: ২০:৫০, ৮ নভেম্বর ২০২৩

২০ হাজার সুবিধাভোগীর সঙ্গে এমপি টগরের মতবিনিময়

ছবি: সময়বিডি.কম

চুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ইউনিয়ন পর্যায়ে বর্তমান সরকারের সামাজিক সুরক্ষার আওতায় সুবিধাভোগী ব্যক্তিদের নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (৮ নভেম্বর) বেলা ১১টায় উপজেলার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে জীবননগর পৌরসভা, মনোহরপুর, কেডিকে ও বাঁকা ইউনিয়নের আয়োজনে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মো. আলী আজগার টগর।

এ সময় তিনি বলেন, '২০০৮ সালের আগে এই আসনে অনেকেই এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। কেউ আপনাদের কথা ভাবেনি, পিছিয়েপড়া জনগোষ্ঠীর কথা ভাবেনি। ২০০৮ সালে জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর আপনাদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সামাজিক সুরক্ষার আওতায় সুবিধাগুলো আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন। মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন। নবজাতক শিশুদের কথা ভেবে মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদান শুরু করা হয়েছে। স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের বইখাতা কেনার জন্য এখন মোবাইল ফোনে টাকা চলে আসে। ভূমিহীন-গৃহহীন মানুষের জন্য জমিসহ ঘর প্রদান করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, আমরা কখনো কি স্বপ্নেও ভেবেছিলাম আমাদের দেশে পানির নিচ দিয়ে টানেল হবে? বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাত ধরে পানির নিচ দিয়ে বঙ্গবন্ধু টানেল উদ্বোধন করা হয়েছে। ঢাকা শহরে মেট্রোরেল তৈরি হচ্ছে। বিমানবন্দরে টার্মিনাল নির্মাণ করা হয়েছে। পদ্মা সেতু নির্মাণ করার আগে অনেকেই কটাক্ষ করেছিলেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু নির্মাণ করে সকল সমালোচনার দাঁতভাঙা জবাব দিয়েছেন। পদ্মা সেতু দিয়ে এখন ট্রেন চলাচল শুরু করেছে। অতি অল্প সময়ের মধ্যেই আমরা রাজধানী ঢাকায় যাতায়াত করতে পারি। প্রতিটি এলাকায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, জাতীয় নির্বাচনকে বানচাল করতে জামাত-বিএনপি এদেশে আবারও জ্বালাও পোড়াওসহ অগ্নিসন্ত্রাস শুরু করেছে। গাড়িতে আগুন লাগিয়ে নিরীহ মানুষকে পুড়িয়ে মারছে।এ সকল কাজ করে শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করা যাবে না। আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আপনারা আবারও শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় বসাবেন।

জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা মমতাজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সহিদুল ইসলাম, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমান, জীবননগর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, দর্শনা পৌর মেয়র আতিয়ার রহমান হাবু, জীবননগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, বাঁকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের প্রধান, মনোহরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, কেডিকে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল বাসার শিপলু প্রমূখ।

জীবননগর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ও ২০ হাজারের অধিক সুবিধাভোগী উপস্থিত ছিলেন।

নভেম্বর ৮, ২০২৩

সালাউদ্দীন কাজল/এবি/

মন্তব্য করুন: