• ঢাকা

  •  সোমবার, মার্চ ৪, ২০২৪

বিনোদন

চলচ্চিত্রের মিয়াভাই নায়ক ফারুক মারা গেছেন

অনলাইন ডেস্ক:

 আপডেট: ১০:৪২, ১৫ মে ২০২৩

চলচ্চিত্রের মিয়াভাই নায়ক ফারুক মারা গেছেন

ঢাকা: বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের মিয়াভাই খ্যাত নায়ক, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ঢাকা-১৭ (গুলশান-বনানী) আসনের সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক) মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

সোমবার (১৫ মে) সকাল ৮টা ৩০ মিনিটের দিকে সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন বলে সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করে তার ছেলে শরৎ বলেন, 'আজ  আব্বু মারা গেছেন। আমার আব্বুর জন্য দোয়া করবেন।'

সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে প্রায় দুই বছর যাবৎ চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

ফারুক ১৮ আগস্ট ১৯৪৮ সালে মানিকগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা আজগার হোসেন পাঠান। তার শৈশব-কৈশোর ও যৌবনকাল কেটেছে পুরান ঢাকায়। পাঁচ বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার ছোট।

১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত জলছবি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে তার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে। তিনি লাঠিয়াল, সুজন সখী, নয়নমনি, সারেং বৌ, গোলাপী এখন ট্রেনে, সাহেব, আলোর মিছিল, দিন যায় কথা থাকে, মিয়া ভাই-সহ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। 

লাঠিয়াল চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি ১৯৭৫ সালে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন এবং ২০১৬ সালে আজীবন সম্মাননা অর্জন করেন। 

ফারুক স্কুল জীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন। ১৯৬৬ সালে তিনি ছয় দফা আন্দোলনে যোগ দেন এবং এ সময়ে তার নামে প্রায় ৩৭টি মামলা দায়ের করা হয়। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। তিনি ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিতব্য একাদশ বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনে ঢাকা-১৭ সংসদীয় আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেব সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

ফারজানা পাঠানকে ভালোবেসে বিয়ে করেন ফারুক। তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। কন্যা ফারিহা তাবাসসুম পাঠান ও পুত্র রওশন হোসেন শরৎ।

অভিনেতা ফারুকের মরদেহ আগামীকাল মঙ্গলবার ভোরের ফ্লাইটে ঢাকায় আনা হবে।

মে ১৫, ২০২৩

এসবিডি/এবি/

মন্তব্য করুন: