• ঢাকা

  •  মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

সাহিত্য-সংস্কৃতি

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বকবির ৮২তম মহাপ্রয়াণ দিবস পালিত

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৭:৫৫, ৬ আগস্ট ২০২৩

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বকবির ৮২তম মহাপ্রয়াণ দিবস পালিত

সিরাজগঞ্জ: ২২শে শ্রাবণ ১৪৩০ বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৮২তম মহাপ্রয়াণ দিবস। দিবসটিকে যথাযথ মর্যাদার সাথে পালন করেছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় (রবি)। 

রবিবার (৬ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে মুখ্য আলোচক ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম।

তিনি বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালি জাতিসত্তার অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। তিনি বাংলা সাহিত্যের একমাত্র নোবেল বিজয়ী। বাঙালি সংস্কৃতি বিনির্মাণে রয়েছে তাঁর অনন্য অবদান। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে কবির গান ও কবিতা মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রেরণা দিয়েছে; শক্তি যুগিয়েছে।তিনি আমাদের জাতীয় সংগীতের স্রষ্টা। এই মহান কবির স্মৃতিকে অম্লান করে রাখতে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়। কবির মহান সৃষ্টিকর্মকে বিদ্যায়তনিক চর্চার অন্তর্ভুক্ত করে নবীন প্রজন্মকে রবীন্দ্র ভাবধারায় আলোকিত করতে আমরা নিরলস চেষ্টা করে যাচ্ছি। কবির প্রয়াণ দিবসে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে কবিকে গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি।

উপাচার্য আরো বলেন, এই শোকাবহ আগস্টেই আমরা হারিয়েছি বাঙালি জাতিসত্তার রূপকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ ১৫ই আগস্টে নিহত সকলের প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা। 

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পর্বে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংগীত ও নৃত্য পরিবেশনের মধ্য দিয়ে কবির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নির্মাণ, রবীন্দ্র কবিতার চলচ্চিত্রায়িণ ‘বাঁশি’। সবশেষে সত্যজিৎ রায় কর্তৃক নির্মিত ডকুমেন্টারি ‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর’ প্রদর্শিত হয়।

আগস্ট ৬, ২০২৩

মৃণাল সরকার মিলু/এবি/

মন্তব্য করুন: