• ঢাকা

  •  সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

বিনোদন

মাকে খুনের দায়ে অভিনেতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক:

 প্রকাশিত: ১২:০৮, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

মাকে খুনের দায়ে অভিনেতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিজের মাকে খুনের দায়ে কানাডিয়ান অভিনেতা রায়ান গ্রানথামকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ব্রিটিশ কলম্বিয়া সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ক্যাথলিন কের। গত বুধবার ২৪ বছর বয়সি  'রিভারডেল' এর এই অভিনেতাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

২০২০ সালে মা বারবারা ওয়েট-কে খুন করেন রায়ান। তারপর থেকেই পুলিশ হেফাজতে ছিলেন অভিনেতা। 'ডায়েরি অব এ উইম্পি কিড' খ্যাত অভিনেতার বিরুদ্ধে ফার্স্ট ডিগ্রি মার্ডারের অভিযোগ ছিল। যদিও বিচারপতি তাকে দ্বিতীয় ডিগ্রি মার্ডারের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করেছেন। 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম জানায়, দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর থেকেই রায়ান গ্রানথামের মানসিক স্বাস্থ্যের চিকিৎসা চলছে। তবে শুধু নিজের মাকেই নয়, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকেও খুনের পরিকল্পনা করেছিলেন রায়ান। গণহত্যার পরিকল্পনা ছিল তার।

গত মার্চে ভ্যাঙ্কুভার আদালতে দাঁড়িয়ে নিজের কৃতকর্মের কথা স্বীকার করেন অভিনেতা। আদালতে তিনি বলেন, বাড়িতে পিয়ানো বাজানোর জন্য মা বারবারা ওয়েটের মাথার পিছন দিকে গুলি চালান তিনি। গুলি চালানোর পর তার মা জেনেও যান যে তার ছেলেই তাকে খুন করতে চেয়েছে।

গোপ্রো ক্যামেরার উঠে আসে মা বারবারাকে খুনের দৃশ্য। ভিডিয়োতে দেখা খুনের পর বিয়ার খান এবারে গাঁজা সেবন করেন রায়ান গ্রানথাম। এরপর গাড়িতে তিনটে বন্দুক, বেশকিছু গোলাবারুদ এবং ১২টি মোলোটভ ককটেল ভরে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর বাসবভবনের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন। তাকে খুনের চক্রান্ত ছিল রায়ানের। এরপর হোপ শহরের দিকে ২০০ কিলোমিটার গাড়ি চালিয়ে যান।

এই অভিনেতা ভ্যাঙ্কুভার থানায় গিয়ে পুলিশকে জানিয়েছিলেন, 'আমি আমার মাকে খুন করেছি।' 

আদালতকে অভিনেতা জানিয়েছেন, ভ্যাঙ্কুভারের লায়ন্স গেট ব্রিজে কিংবা সাইমন ফ্রেজার ইউনিভার্সিটি, যেখানে তিনি পড়াশোনা করেছেন, সেখানে গণহত্যার ছক ছিল তার।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে  'ডায়েরি অব এ উইম্পি কিড'-এর অভিনয় করে পরিচিতি পেয়েছিলেন রায়ান গ্রানথাম। ২০১৯-এ টিভি শো  'রিভারডেল' এবং ফ্যান্টাসি ড্রামা 'সুপারন্যাচরাল'-এ অভিনয় করেন রায়ান।

সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

এসবিডি/এবি/

মন্তব্য করুন: